শিল্পী ওয়াকিলুর রহমান

Wakilur Rahman is simultaneously a painter, printmaker and a sculptor.

শিল্পী ওয়াকিলুর রহমান

Spread the love
  • 4
    Shares

শিল্পী ওয়াকিলুর রহমান এর জন্ম ১৯৬১ সালের ১৫ ডিসেম্বর। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা ইনস্টিটিউট ( বর্তমান চারুকলা অনুষদ) থেকে স্নাতক ১৯৮১ সালে। চায়না থেকে পেইন্টিং বিষয়ে মাস্টার্স করেন ১৯৮৬ সালে।

দেশে ফিরে ‘মাধ্যম’ নামে একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থায় কাজ করেন দুই বছর। ১৯৮৮ সালে বসবাসের জন্য চলে যান পূর্ব জার্মানিতে। দুই বছর পর দুই জার্মানি এক হয়ে যায়। তিনি ছিলেন বার্লিনে। ১৯৯৩ সালে পশ্চিম বার্লিন আর্ট স্কুলে ভিজুয়াল কমিউনিকেশন ডিপার্টমেন্টে গেষ্ট স্টুডেন্ট হিসেবে কাজ শুরু করেন। সেখানে কাজ করেছেন ৮/৯ বছর।

এখানে কাজ করেছেন লিথোগ্রাফি, এচিং, একুয়েটিংসহ প্রিন্ট মেকিংয়ের নানা বিষয় নিয়ে। এর পাশাপাশি তিনি ১৯৯৫ সালে একই আর্ট স্কুলে ‘আর্ট ইন কনটেক্সট’ বিষয়ে তিন বছর পড়াশোনা করেন। ১৯৯৪ সাল থেকে প্রতিবছরই দেশে এসেছেন এবং প্রতি বছরই প্রদর্শনী করেছেন।

২০১০ সাল থেকে তিনি স্থায়ী ভাবে দেশে বসবাস শুরু করেন। দেশে এসে দেড় বছর শুধুই ফ্রিল্যান্স আর্টিষ্ট ছিলেন। ২০১২ সাল থেকে ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক আর্কিষ্ট ডিপার্টমেন্টে পারটাইম শিক্ষকতা শুরু করেন। সেখানে পড়াচ্ছেন শিল্পকলা এবং আর্কিটেক্সারাল ডিজাইন। তিনি ঢাকা আর্ট সেন্টারে কিউরেটিং করেছেন।

২০১৫ সাল থেকে ‘কলাকেন্দ্র’ প্রতিষ্ঠার পর থেকে এর পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন। ওয়াকিলুর রহমানের জার্নির সঙ্গে যাদের পরিচয় আছে তারা বলতে পারবেন তিনি আর্টের নানা বিভাগে, নানা মাধ্যমে কাজ করেছেন। করেছেন ইনস্টলেশন।

২০০৫ সালে তাঁর লাইভ আর্ট দেখে মুগ্ধ হয়েছিলাম। জীবন্ত কঁচিতৃণ মূর্ত হয়েছিল তাঁর ক্যানভাসে। বর্ণমালায় ছাপ দিয়ে কাগজে বিশাল বিলাশ কাজ করেছিলেন। শুধু ১৯৭১ লেখা ছাপ দিয়েই বিশাল কাগজ পূর্ণ করেছিলেন। এমন অনেক বিষয় ছিল সেই কাগজে।

২০০৭ সালে ওয়াকিলুর রহমানের বাসায় গিয়ে হাজির হই অনিয়মিত একটি সাহিত্য ম্যাগাজিনের স্বাক্ষাৎকার নেয়ার জন্য। সঙ্গে আমার সংগ্রহের কাজটি কারার জন্য। স্বাক্ষাৎকার শেষে অনুরোধ করেছিলাম বর্ণমালা লেখা কোন টুকরো থাকলে দান করার জন্য। তিনি আমাকে দিলেন ১৯৯২ সালে জার্মানিতে করা একটি প্রিন্ট। কাজটা আমার এতই ভালো লেগেছিল, সে রাতে এই ছবিটি বিছানায় মাথার কাছে রেখে ঘুমিয়েছিলাম।

শিল্পী ওয়াকিলুর রহমান
১৯৯২ সালে জার্মানিতে বসে করা প্রিন্ট | শিল্পী ওয়াকিলুর রহমান | সংগ্রাহক : মোহাম্মদ আসাদ
শিল্পী ওয়াকিলুর রহমান

শিল্পী ওয়াকিলুর রহমান

আলোকচিত্রটি ২০০৭ সালে তোলা

আলোকচিত্রী : মোহাম্মদ আসাদ


facebook থেকে নেয়া :

মন্তব্য করেন | Taeb Millat Hossain

শিল্পীর ইনস্টলেশন বা স্থাপনাকর্ম একাধিক প্রদর্শনীতে দেখার সৌভাগ্য হয়েছে। তার কাজে নিরীক্ষা থাকে। থাকে কিছু বলবার চেষ্টা। এতে রাষ্ট্র বা সমাজ না পাল্টালেও মানব মনে কিছু দাগ রেখে যায়। এই ভাবনার খোরাক তৈরি করা বড় বিষয়।ভালো থাকুন শিল্পী।

মন্তব্য করেন | Mihir Moshiur Rahman

কথা গুলি জানতাম কিন্তু এতটা বিস্তারিত না, আমার অনেক পছন্দের মানুষ। কিছু কাজে উনার সাথে ব্যক্তিগত সান্নিধ্যের এবং উনার সাথে থেকে কাজের অভিজ্ঞতা হয়েছে। যা ছিল রোমাঞ্চকর।দেখার অভ্যাসও যে শিল্প চর্চার অংশ বা কতটা জরুরি তা উনার কাজ দেখলেই ধারণা করা যায়। ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা।

মন্তব্য করেন | Biplab Biprodas

ওয়াকিল ভাইয়ের প্রতি আমার শ্রদ্ধা ও শুভকামনা।

মন্তব্য করেন | Mahatab Hridoy

আমার স্কেচ বুকে এই মহান মানুষের হাতের ছোয়া আছে। ☺


Spread the love
  • 4
    Shares

Leave a Reply

%d bloggers like this: